মোঃ সেলিম মোড়ল। জানাগেছে, শনিবার সকালে নোয়াকাটী মালোপাড়ার জগদীশ বিশ্বাস মাছ ধরার জন্য কপোতাক্ষ নদীতে জাল ধরে। একপর্যায় মূর্তিটি নদীর স্রোতে ভেষে মালোপাড়া পয়েন্টে মৎস্য আহরণের জন্য পাতা বেন্টি জালে এসে আটকে যায়। এরপর সেটি উদ্ধার করে উপরে নিয়ে আসে জগদীশ। আর মূহর্তে মধ্যে এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে উৎসুক জনতা মূর্তিটি দেখতে সেখানে ভীড় জমায়। আবার তাৎক্ষনিক সনাতন নারীরা এটি পরিস্কার করে ফুল, দুধ ও মিষ্টি দিয়ে পুজা শুরু করে দেয়।

ধারণা করা হচ্ছে কোন একটি মহল এটি চুরি করে বিক্রির উদ্যোশে আত্নগোপন করে রেখেছিল। কিন্ত পরবর্তীতে সেটি রক্ষা করতে না পেরে হয়তোবা নদীতে ফেলে দিয়েছে তারা। এরপর মূর্তিটি নদীর জলে ভাসতে ভাসতে নোয়াকাটী মালোপাড়া পয়েন্টে পাতা বেন্টি জালে এসে আটকে গিয়েছে।

এলাকাবাসীর দাবী, শিবলিঙ্গটি উদ্ধারকৃত পয়েন্টের আশপাশ এলাকার কোন মন্দিরে প্রতিস্থাপন করা হোক। তাহলে হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষেরা এটি রক্ষনাবেক্ষণ করতে পারবে। পাশাপাশি পুজা অর্চনা করতে পারবে। তবে এরির্পোট লেখা পর্যন্ত কপোতাক্ষ নদ থেকে উদ্ধারকৃত শিবলিঙ্গটি পাইকগাছা থানায় জমা দিয়েছে তারা।