সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করতে টিআর প্রকল্প নিয়ে এক চক্র মরিয়া হয়ে উঠেছে এর প্রতিবাদের এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (২৪আগস্ট) সকালে উপজেলা পরিষদ হলরুমে ওই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক আলিমুর রহমানের আহবানে উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, মেম্বার, কাউন্সিলর ও আ.লীগ নেতৃবৃন্দ উপস্থিততে ওই সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন-উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক আলিমুর রহমান, উপজেলা আ.লীগের সাবেক আহবায়ক সাজেদুর রহমান খান চৌধুরী মজনু, ভাইস চেয়ারম্যান কাজী আসাদুজ্জামান শাহাজাদা, পৌর আ.লীগের সভাপতি আজিজুর রহমান, কেরালকাতা ইউপি চেয়ারম্যান ভিপি মোরশেদ আলী, ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যাপক এম এ কালাম, এসএম আফজাল হোসেন হাবিল, মাহফুজুর রহমান নিশান, রবিউল হাসান, বিশাখা তপন সাহা, বেনজির হোসেন হেলাল, সাঈদ আলী গাজী ,গাজী মাহবুবুর রহমান মফে, শেখ সোহেল রানা, আ.লীগনেতা মোসলেম আহম্মেদ, কাউন্সিলর রফিকুল ইসলাম, আসাদুজ্জামান তুহিন, আ.লীগনেতা মশিয়ার রহমান বাবু, রবিউল আলম মল্লিক রবি, যুবলীগনেতা শরিফুল ইসলাম, আ.লীগনেতা আব্দুস সালাম, ভুট্টোলাল গাইন, প্রভাষক আব্দুল মান্নান, আসলামুল আলম, এস.এম আমজাদ হোসেন প্রমুখ। সংবাদ মম্মেলনে নেতাকর্মীবৃন্দ অভিযোগ করে বলেন-গত ২১শে আগষ্ট সাতক্ষীরা হতে প্রকাশিত দৈনিক পত্রদূত ও দৃষ্টিপাত এবং ২২আগষ্ট দৈনিক সুপ্রভাত পত্রিকায় সাতক্ষীরার কলারোায় টিআর, কাবিখা-কাবিটা প্রকল্পের কোটি টাকা হরিলুট বা একই রকম শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদটি সত্য নয়। আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে বর্তমান সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করতে সরকারের টিআর এবং কাবিখা প্রকল্প সম্পর্কে সাংবাদিকদের ভূল তথ্য সরবরাহ করা হয়েছে। জামাত বিএনপি সরকারের আমলে টিআর কাবিখা দিয়ে কর্মী পোষা হতো। কিন্তু মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার দূর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স এবং মাননীয় সংসদ সদস্য এড. লুফুল্লাহ’র সততা ও নির্লোভ মানবিকতার কারণে কলারোয়া উপজেলায় সরকারের পক্ষ হতে বরাদ্দকৃত টিআর, কাবিখার অধিকাংশ প্রকল্পই প্রাক্কলন অনুযায়ী যথাযথ ভাবে বাস্তবায়িত করা হয়েছে। টিআর, কাবিখা সহ অন্যান্য উন্নয়ন প্রকল্পের বরাদ্দ হতে মাননীয় সংসদ সদস্য এড.মুস্তফা লুৎফুল্লাহ অদ্যাবধি কোন অর্থনৈতিক সুবিধা গ্রহণ করেননি। বানোয়াট ও ভিত্তিহীন প্রকাশিত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে তারা বলেন-বিরোধী দলের রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের উদ্দেশ্য বাস্তবায়িত হয় এমন সংবাদ প্রকাশ করা হতে বিরত ও নিবৃত থাকার আহবান জানান।

উপস্থিত বক্তব্যে বক্তারা বলেন- জামাত বিএনপি সমর্থিত কতিপয় সাংবাদিক সরকারের কোন উন্নয়ন ও জাতীয় দিবসে সংবাদ পরিবেশন থেকে বিরত থাকে অথচ আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয় এমন কিছু বানোয়াট সংবাদ অতিউৎসাহী হয়ে প্রচার করতে দেখা যায়।
প্রকাশিত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে বলতে তারা বলেন-বিরোধী দলের রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের উদ্দেশ্য বাস্তবায়িত হয় এমন সংবাদ প্রকাশ করা হতে বিরত ও নিবৃত থাকার আহবান জানান।